১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, সন্ধ্যা ৭:২৯
বিজ্ঞাপনের জন্য ই-মেইল করুনঃ ads@primenarayanganj.com

ভুল ফতোয়া ও সহিংস তৎপরতা বন্ধের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

প্রাইমনারায়ণগঞ্জ.কম

ভূমি পল্লী জামে মসজিদ কমপ্লেক্সের খতিব শায়েখ আহমাদুল্লাহর ভুল ফতোয়া একরোখা নীতি ও সহিংস তৎপরতা বন্ধের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

শনিবার (১৮ জুলাই) সকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব ভবনের ৩য় তলায় সিন্যামন রেষ্টুরেন্টে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। 

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন তথা কথিত লা মাযহাবীরা বাংলাদেশের মুসলমানদের ঐক্য বিনষ্ট করার পায়তারায় লিপ্ত রয়েছে। নি:সন্দেহে লা মাযহাবী দল একটি পথভ্রষ্ট ও গোমরাহী দল। 

লিখিত বক্তব্যে তারা বলেন, ২য় বৃহত্তম মুসলিম দেশ বাংলাদেশ। এদেশের মুসলমানগন শান্তিপ্রিয়। তাদের জীবন-জিন্দেগির সকল ক্ষেত্রেই তারা কুরআন সুন্নাহর পুর্নাঙ্গ অনুস্মরন করে থাকেন। ইমান বিশুদ্ধ আকিদা এবং কুরআন সুন্নার পুর্নাঙ্গ অনুস্মরন ছাড়া মুমিন বা মুসলমান হবার আদৌ কোনো সুযোগ নেই। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখ পরিতাপের বিষয় আন্তর্জাতিক ইসলাম বিরোধী চক্র নিউ কনজার্বেটিভ এবং দুধর্ষ ইহুদি সংস্থা ফ্রি-মেসেন্স এ মদদ পুষ্ট হয়ে নেক সুরতের ভ্যাগধারী কিছু সংস্থা কিছু ব্যক্তি কিছু মহল ও কিছু সম্প্রদায় সরলমনা মুসলমানদের ইমান আকিদা নষ্ট করার জন্য সু-কৌশলে কাজ করে যাচ্ছে।

তার মধ্যে উল্যেখযোগ্য হলো কথিত আহলে হাদিস দাবিদার লা-মাজহাবি সম্প্রদায়, যারা ইসলামের অপব্যাখ্যা ও ইমান বিদ্ধস্থি ও মনগড়া ভুল ফতুয়ার মাধ্যমে মুসলমানদের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টির অপপ্রয়াস চালাচ্ছে। দুঃখ পরিতাপের বিষয় তাদের ভয়াল ও আগ্রসি থাবা এখন নারায়নগঞ্জে বসাবার চেষ্টা করছে। প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে যার নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছে সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন ভুমি পল্লী জামে মসজিদের বিতর্কিত খতিব লা-মাজহাবিদের প্রধান মুখপত্র শায়েখ আহমাদুল্লা।

ইতিমধ্যে বিতর্কিত বক্তৃতা ও একপেশে মনগড়া ভুল ফতুয়া দিয়ে ভুমি পল্লী আবাসনের সুন্দর শান্ত ও সুস্থির পরিবেশকে বিনষ্ট করেছে। তার নেতৃত্বে কয়েক দফা জুম্মার নামাজের সময় দলাদলি ও মারামারির ঘটনা ঘটেছে। তথাপিও সে তার ভুল ফতুয়ায়ে অনঢ় থেকে প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তাদের দোহাই দিয়ে তার দাম্ভিকতার প্রকাশ করেই চলেছে। উল্যেখ্য ভুমি পঞ্জী জামে মসজিদের সুচনা লগ্ন থেকে প্রত্যেক নামাজের পর সম্মলিত মুনাজাত চলে এসেছে। 

এ সংবাদ সম্মেলন থেকে কয়েকটি দাবি জানান তারা। এগুলো হলো অনতিবিলম্বে ভুমি পল্লী জামে মসজিদে নামাজের পর সম্মিলিত মুনাজাত চালু করতে হবে, বারংবার ভুল ফতুয়া প্রদানকারী ও লা-মাজহাবি মতাদর্শের প্রবক্তা শায়েখ আহমাদুল্লাকে খতিব পদ থেকে অব্যাহতি দিতে হবে। 

সংবাদ সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাইতুল মামুর জামে মসজিদের খতিব হাফেজ মাওলানা আব্দুর রহিম। আরও উপস্থিত ছিলেন মাওলানা সরকার মুুহাম্মদ আবু বকর সিদ্দিকী, মাওলানা দ্বীন ইসলাম আনছারী, মাওলানা দিদারুল ইসলাম, মাওলানা মোহাব্বতুল্লাহ আব্দুল খালেক, মাহদী হাসান, ইমাম হোসেন, হাফেজ আব্দুল্লাহ, মাওলানা রফিকুল ইসলাম, আদনান পলক, মো: আলিফ, শফিকুল ইসলাম, ক্বারী মহিউদ্দিন প্রমুখ।

আজকের দিন-তারিখ

  • মঙ্গলবার (সন্ধ্যা ৭:২৯)
  • ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৮ই রজব, ১৪৪২ হিজরি
  • ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (বসন্তকাল)

বাছাইকৃত সংবাদ

No posts found.