১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১লা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, সন্ধ্যা ৭:৪৭
বিজ্ঞাপনের জন্য ই-মেইল করুনঃ ads@primenarayanganj.com

দল করেন সবাই, মাঠে থাকেন সাখাওয়াত একাই

প্রাইমনারায়ণগঞ্জ.কম

বছর ঘুরে ৩০ ডিসেম্বর এলেই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দিনটিকে গণতন্ত্র হত্যা দিবস হিসাবে পালন করে বিএনপি। কেন্দ্র থেকে ঘোষিত হয় প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ কর্মসূচী। তারই ধারাবাহিকতায় এবারও জেলা ও মহানগর পর্যায়ে বিক্ষোভ কর্মসূচী পালনের ঘোষণা দিয়েছিলো দলটি। তবে কেন্দ্র ঘোষিত এ কর্মসূচীকে পাত্তা দেয় নি নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতৃবৃন্দরা। নগরীতে এড. সাখাওয়াতের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ ছাড়া বিএনপির স্থানীয় অন্য কোনো সিনিয়র নেতাকে কোনো কর্মসূচী পালন করতে দেখা যায় নি এদিন। আর এ বিষয় নিয়ে নগরীতে নেতাকর্মীদের মাঝে চলছে নানা কানাঘুষা।

বিএনপির তৃণমূলের নেতাকর্মীরা বলছেন, দল করেন সবাই তবে মাঠে থাকেন সাখাওয়াত ভাই একাই। বিএনপির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী, দলীয় প্রধানের জন্মদিন, দলের প্রতিষ্ঠাতার মৃত্যুবার্ষিকীসহ সকল জাতীয় দিবস এবং দলীয় আন্দোলন সংগ্রাম ও কেন্দ্র ঘোষিত সকল কর্মসূচীতে সরব উপস্থিতি থাকে এড. সাখাওয়াতের। শুধু সরব উপস্থিতিই নয়, বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী নিয়ে পালন করে সকল কর্মসূচী। মোটকথা, দলের দু:সময়ে দলের কান্ডারী হয়ে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির হাল ধরেছেন সাখাওয়াত ভাই। এছাড়াও শুধু কর্মসূচীই নয়, দলের যে কোনো স্তরের নেতাকর্মীদের যে কোনো বিপদে-আপদেও সর্বদা নেতাকর্মীদের পাশে থাকেন এড. সাখাওয়াত এমনটাই দাবী নেতাকর্মীদের।

তবে, যারা দলের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদ-পদবী বহন করে নিজ ঘরে বসে আছেন তাদের বিষয়ে নেতাকর্মীরা বলছেন, নারায়ণগঞ্জ বিএনপির অনেক নেতাকর্মীই আছেন যারা বড় বড় পদ দখল করে আছেন, অথচ তাদের অনেককেই রাজপথের আন্দোলন-কর্মসূচীতে একেবারেই দেখা যায় না। মাঝে মাঝে এসব নেতার ৮-১০ জন চেলা বা কর্মীকে দেখা যায় ব্যানার নিয়ে টানাটানি করতে। তবে ব্যাপক আকারে কখনোই দেখা যায় না এসব নেতা ও তাদের অনুসারীদের। তারপরও দল যদি কখনো ক্ষমতায় আসে তখন এসব নেতাদের ভীড়ে হয়তো খুজে পাওয়া যাবে না দলের দু:সময়ের কান্ডারী এড. সাখাওয়াত হোসেন খানকে এমনটাই মনে করেন তৃণমূলের এসব নেতাকর্মীরা।

এদিকে, নগরীতে এড. সাখাওয়াতের নেতৃত্ব কেন্দ্র ঘোষিত বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করা হয়েছে। বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) সকালে নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের সামনে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ শেষে বিক্ষোভ মিছিল বের হলে মিছিল পণ্ড করে দেয় পুলিশ। মিছিলটি নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের সামনে থেকে বের হয়ে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব পর্যন্ত আসলে সদর থানার তদন্ত (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ মিছিলে বাধা দিয়ে ব্যানার ছিনিয়ে নেয় এবং নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

এর আগে, নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের সামনে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেন খান বলেন, একদলীয় শাসন প্রতিষ্ঠা করতেই ৩০ তারিখের পরিবর্তে ২৯ তারিখ রাতে প্রহসনের নির্বাচন করে এ সরকার। এ সরকার আজকে বিরোধী দলকে মামলা-মোকদ্দমা দিয়ে দমন করে রাখতে চায়, একটি বাকশাল কায়েম করতে চায়। তবে, জনগনকে সাথে নিয়ে, এদেশে গণতান্ত্রিক সরকার, মানুষের ভোটের অধিকার, মৌলিক অধিকার, কথা বলার অধিকার, ভোট দেয়ার অধিকার, রাজনীতি করার অধিকার প্রতিষ্ঠা করা হবে বলেও শপথ গ্রহন করেন তিনি।

আজকের দিন-তারিখ

  • সোমবার (সন্ধ্যা ৭:৪৭)
  • ১লা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৭ই রজব, ১৪৪২ হিজরি
  • ১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (বসন্তকাল)

বাছাইকৃত সংবাদ

No posts found.