১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, বিকাল ৪:১১
বিজ্ঞাপনের জন্য ই-মেইল করুনঃ ads@primenarayanganj.com

পাড়া-মহল্লায় অস্ত্র

প্রাইমনারায়ণগঞ্জ.কম

ঈদের পরপরই পাড়া মহল্লা গুলোতে বিশৃঙ্খলা বাড়তে থাকে। অলিতে গলিত কিশোর যুবারা গ্রুপ বানিয়ে দাবড়ে বেড়ায়। লোহার রড, রাম দা, সুইচ গিয়ার চাকু, তলোয়ার, চাপাটিসহ অস্ত্র দিয়ে মহড়া দেয় তারা। তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারামারিসহ বিভিন্ন ঘটনা সংগঠিত করে। এমনি কি হত্যাকান্ডের ঘটনাও ঘটে।

পুলিশের দাবি, নজরদারি আছে সেই সাথে কঠোর অবস্থানে পুলিশ। তবে সচেতন মহল ও ভুক্তভোগীদের দাবি, ঘটনার পর পুলিশ সক্রিয় হয়।

বুধবার সদর উপজেলার উত্তর মাসদাইর গাবতলী এলাকায় প্রকাশ্যে উৎস নামের এক যুবক খোলা তলোয়ার হাতে প্রতিপক্ষকে ধাওয়া দেয়। এ ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ফতুল্লা মডেল থানায় এ নিয়ে অভিযোগ করলেও গতকাল পর্যন্ত উৎসকে আটক করার খবর পাওয়া যায়নি।

এর আগে আগে ফতুল্লায় প্রকাশ্যে পিস্তল উঁচিয়ে এক কিশোরের উৎফুল্লভাবে গুলি ছোড়ার ভিডিও ক্লিপ ফেইসবুকে ভাইরাল হয়েছে। ফেইসবুকে ‘ভিডিওতে দেখা গেছে প্রকাশ্যে অস্ত্র প্রশিক্ষণ নিচ্ছে সোহান নামের এক কিশোর। সে ফতুল্লার পাগলা বৌবাজার এলাকার কালা জাহাঙ্গীরের ছেলে।

১৯ জানুয়ারি সিদ্ধিরগঞ্জের আটি এলাকায় অভিযান চালিয়ে কিশোর গ্যাং গ্রæপের ৬ সদস্যকে গ্রেফতার করে র‌্যাব-১১। ওই সময় তাদের দেহ তল্লাশি করে ১টি দেশীয় ধারালো চাপাতি ও ২টি গিয়ার চাকু উদ্ধার করা হয়। তাদের বয়স ছিলো ১১ থেকে ১৬ বছরেরমধ্যে। আরেক ঘটনায় ফতুল্লার কাশীপুর ইউনিয়নের আদর্শ নগর এলাকা থেকে দেশীয় অস্ত্রসহ ইসমাইল হোসেন (১৭) নামে কিশোর গ্যাং সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছিলো পুলিশ।

সূত্রে জানা গেছে, ঈদের দিন রাতে পাঠানটুলিতে এলাকাতে কয়েকজন দুর্বৃত্ত রাম দা ও চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে শুভ নামে এক যুবককে। এ ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ১ এপ্রিল ফতুল্লার দেওভোগ আদর্শনগরে শরীফ হোসেন (৩০) নামে এক ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে কিশোর গ্যাং সদস্যরা।

গত বছরের ২৩ আগষ্ট রাতে দেওভোগে অপু নামে এক ইলেকট্রিক মিস্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়। ওই বছর ২৮ জুলাই শহররের দেওভোগ এলাকায় ছুরিকাআঘাতে শাকিল (৩৫) নামে এক যুবক খুন হয়। একই বছর ২৭ জানুয়ারি দেওভোগ মাদরাসা এলাকায় এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে হত্যা করে আলমগীর নামে এক যুবকে। এর পরের দিন ২৮ জানুয়ারি দেওভোগের লিচুবাগ এলাকার রিক্সা মিস্ত্রির ছেলে হাসিয়ারী শ্রমিক সিয়ামকে হত্যা করে। ২৭ জুলাই শীতলক্ষ্যায় নোঙ্গর করে রাখা একটি জাহাজ থেকে স্কুলছাত্র রিতুল ঘোষের (১৪) লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ প্রসঙ্গে নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সভাপতি এবি সিদ্দিক জানান, প্রতিটি এলকায় গড়ে উঠেছে কিশোর গ্রæপ। এসব গ্রুপের সদস্যদের মধ্যে লিডার থাকে এলকার প্রভাবশালী ব্যক্তির ছেলে, ভাগিনাসহ নানা আত্মীয়। এতে করে কোন ঘটনা ঘটলে তারা পুলিশের সাথে সহজেই সখ্যতা করে মিমাংসা করে ফেলে। এতে করে এলাকাগুলোতে ঘটনা বন্ধ হয় না। অনেক এলাকায় রাতে বিভিন্ন ধরনের অস্ত্র নিয়ে মহড়া দেয়। বিভিন্ন পাড়া মহল্লাগুলোতে অনেক অস্ত্র রয়েছে। পুলিশ তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা না নিলে এ ধরনেরা গ্যাং ও নানা ঘটনা বাড়তে থাকবে বলে জানান এই নাগরিক নেতা।

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসলাম হোসেন জানিয়েছেন, কোথাও এমন ঘটনা থাকলে পুলিশ ব্যবস্থা নিবে। মাসদাইর গাবতলী এলাকায় তলোয়ার হাতে এক যুবক মহরা দেয়ার ভিডিও দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। আরেক ঘটনায় লোহার তৈরি কাঠের বাট যুক্ত দা, লোহার রড, চাকু উদ্ধার করা হয়েছে। অপরাধীদের বিরুদ্ধে পুলিশ কঠোর রয়েছে বলে জানান ওসি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মেহেদী ইমরান সিদ্দিক এক সভায় বলেছেন, কোন এলাকার ছাঁদে বক্স (ডিজে) বাজানো যাবে না। এলাকার কোন কিশোর গ্রæপ করা যাবে না। কাউকে অপকর্ম করতে দেখলে আপনারা পুলিশকে জানাবেন।

সচেতন মহলের মতে, ঘটনার পর সক্রিয় না হয়ে আগে থেকেই এলাকাগুলোতে খোঁজ নিয়ে কিশোর গ্যাং রুখতে পারলে এসব ঘটনা এড়ানো যেতো। সেই সাথে পরিবারেরও উচিত নিজের সন্তান সম্পর্কে খোঁজ রাখা। সচেতনতা বৃদ্ধি করা।

আজকের দিন-তারিখ

  • মঙ্গলবার (বিকাল ৪:১১)
  • ২রা মার্চ, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ
  • ১৮ই রজব, ১৪৪২ হিজরি
  • ১৭ই ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ (বসন্তকাল)

বাছাইকৃত সংবাদ

No posts found.